ময়দা মাখার সময় দিয়ে দিন এই সিক্রেট জিনিসটি, পরোটা হবে নরম তুলতুলে, নাম করবে বাড়ির সকলে

ময়দা মাখা হয়ে যাওয়ার পরেও কিছু পদক্ষেপ অনুসরণ করতে হবে। এগুলো সঠিকভাবে অনুসরণ করলে পরোটা আরও নরম হবে।

সাধারণত ব্রেকফাস্টে বা টিফিনে কিংবা রাতে বাঙালি পরিবারে পরোটা খাওয়া হয়ে থাকে। যারাই হেঁশেলে প্রবেশ করেছেন, তাঁদের প্রায় সকলেই পরোটা বানাতে জানেন। কিন্তু অনেকের ক্ষেত্রে দেখা যায় পরোটা বানানোর কিছুক্ষণ পর থেকেই পরোটা শক্ত হয়ে যেতে দেখা যায়। অনেকেই পরোটা দীর্ঘক্ষণ নরম রাখার পদ্ধতি জানেন না। এই বিশেষ প্রতিবেদনেই পরোটা নরম রাখার গুরুত্বপূর্ণ টিপস শেয়ার করা হল।

গুরুত্বপূর্ণ টিপসসমূহ:

প্রথমে পরোটার জন্য নেওয়া আটা বা ময়দা ভালো করে চেলে রাখতে হবে। চেলে নেওয়া এই ময়দা একটি পাত্রে নিয়ে এতে ঈষদুষ্ণ জল বা দুধ যোগ করতে হবে এবং ময়দা মেখে নিতে হবে। একইসঙ্গে অল্প পরিমাণে মাখন বা ঘি গরম করতে হবে। এই গরম মাখন বা ঘি ময়দার ডোতে মেশাতে হবে। কেউ চাইলে বাটার মিল্ক মেশাতে পারেন। এমনটা করলে পরে প্রস্তুত পরোটা বেশ নরম মতো হবে।

আরও বিভিন্ন উপায়ে পরোটা নরম করা যেতে পারে। চাইলে ময়দা মাখার সময়ে বেকিং সোডা যোগ করা যেতে পারে। আবার, ময়দা মাখার সময় জল ব্যবহার না করে টক দই ব্যবহার করলেও পরোটা নরম হবে। এছাড়াও, ময়দা নরম করার জন্য সাধারণ জল ব্যবহার না করে ছানার জল ব্যবহার করা যেতে পারে।

ময়দা মাখা হয়ে যাওয়ার পরেও কিছু পদক্ষেপ অনুসরণ করতে হবে। এগুলো সঠিকভাবে অনুসরণ করলে পরোটা আরও নরম হবে। প্রথমে ময়দা ভালো করে মেখে নিতে হবে এবং এই মাখা ময়দার উপরে একটি ভেজা কাপড় বিছিয়ে রেখে দিতে হবে। এমনটা করলে মাখা ময়দা পরোটা তৈরি করার আগে পর্যন্ত দীর্ঘক্ষণ নরম থাকবে। এছাড়াও, মাখা ময়দার উপরে তেল মাখিয়ে রাখলেও পরোটা নরম তৈরি হবে।

একটা কথা মাথায় রাখতে হবে ডো তখনই নরম হবে, যখন ভালো করে মাখা হবে। সবশেষে পরোটা ভাজার সময়েও কিছু সঠিক পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে। গ্যাস উনুনে একটি ফ্রাইং প্যান চাপিয়ে প্রথমে পরোটাগুলো ভালো করে সেঁকে নিতে হবে। তারপরে তেল দিয়ে ভালো করে ভেজে নিতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে, একসঙ্গে একাধিক পরোটা ভাজা যাবে না, এক এক করে পরোটাগুলো ভাজতে হবে। ব্যাস! এই ধাপগুলো সঠিকভাবে মেনে চললেই প্রস্তুত হয়ে যাবে নরম তুলতুলে পরোটা।